সাগরিকা দত্তচৌধুরি

করোনায় সক্রিয় অর্থাৎ অ্যাক্টিভ রোগীর থেকে রাজ্যে সুস্থ হওয়ার সংখ্যা ছাপিয়ে গেছে গত দু–তিন দিনে। বৃহস্পতিবার স্বাস্থ্য দপ্তরের বুলেটিনে জানানো হয়, গত ২৪ ঘণ্টায় রাজ্যে ৪৬৮ জন করোনা থেকে সুস্থ হয়েছেন। হাসপাতাল থেকে ছুটি হয়েছে এখনও পর্যন্ত ৭,০০১ জনের। রাজ্যে সুস্থতার হার ছাড়াল ৫৪.‌৯৭ শতাংশ। নতুন করে করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন ৪৩৫ জন। সব মিলে আক্রান্তের সংখ্যা এ পর্যন্ত ১২,৭৩৫ জন। চিকিৎসাধীন ৫,২১৬ জন। মাসখানেক আগেও রাজ্যে অ্যাক্টিভ করোনা রোগীর সংখ্যা বাড়ছিল। দেশে করোনায় সুস্থতার হার প্রায় ৫৩ শতাংশ। রাজ্য সেই সংখ্যাও ছাপিয়ে গেল।
এদিন নতুন করে ১২ জনের মৃত্যু হয়েছে। রাজ্যে মৃতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৫১৮। রাজ্যে এখনও পর্যন্ত করোনা পরীক্ষা হয়েছে ৩ লক্ষ ৭০ হাজার ২৯১টি। পজিটিভিটি রেট ৩.‌৪৪ শতাংশ। পজিটিভ হওয়ার সংখ্যাও সেই অর্থে বৃদ্ধি পায়নি। কলকাতায় নতুন করে আক্রান্ত হয়েছেন ১৮০ জন। সেই তুলনায় অন্যান্য জেলায় আক্রান্তের সংখ্যা অনেকটাই কমে এসেছে। হাসপাতালগুলিতে করোনা রোগীদের নিবিড় পর্যবেক্ষণ করা হচ্ছে। শারীরিক কোনও সমস্যা হলে দ্রুত তার মোকাবিলা করার ফলেই রোগীকে দ্রুত সুস্থ করে ছুটি দেওয়া সম্ভব হচ্ছে বলে জানিয়েছেন কলকাতার এক কোভিড হাসপাতালের আধিকারিক। আইসিএমআর গাইডলাইন ছাড়াও বিভিন্ন হাসপাতালে কোভিড টিমের চিকিৎসকেরা নিজেদের অভিজ্ঞতাকে কাজে লাগিয়ে রোগী নির্বিশেষে চিকিৎসা দিচ্ছেন।
করোনায় আক্রান্ত হয়ে চিকিৎসাধীন বিধানসভার মুখ্য সচেতক, পানিহাটির বিধায়ক, উত্তর ২৪ পরগনা জেলা তৃণমূল নেতা নির্মলকান্তি ঘোষ এবং তঁার ছেলে সুস্থ আছেন।
ফের এনআরএসে ৫ জন রোগীর করোনা ধরা পড়েছে। এক প্রসূতির সন্তান প্রসবের পর পজিটিভ রিপোর্ট আসে। সার্জারি বিভাগে ২ জন মহিলা এবং মেডিসিন বিভাগে ২ জন পুরুষের করোনা পজিটিভ এসেছে। তাঁদের কলকাতা মেডিক্যাল ও বেলেঘাটা আইডি–‌তে স্থানান্তর করা হয়। কলকাতার জিপিও–তে ডাক বিভাগের এক কর্মী করোনায় আক্রান্ত। স্যানিটাইজেশনের জন্য দু’‌দিন বন্ধ থাকবে জিপিও।
করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন পেট্রাপোল সীমান্তে কর্মরত এক বিএসএফ জওয়ান। বিহারের বাসিন্দা ৫৮ বছরের ওই জওয়ান বিএসএফের ১৫৮ নম্বর ব্যাটালিয়নের কালিয়ানি ক্যাম্পে কর্মরত। হাওড়া পুরনিগমের প্রাক্তন মেয়র পারিষদ, উত্তর হাওড়ার তৃণমূলের ব্লক সভাপতি গৌতম চৌধুরি করোনায় আক্রান্ত হয়ে গোলাবাড়ির একটি বেসরকারি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। জগৎবল্লভপুর থানার ১১ জন পুলিশকর্মী করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। তাঁরা ফুলেশ্বরের সঞ্জীবন হাসপাতালে ভর্তি। বসিরহাট জেলা হাসপাতালের দু’‌জন নার্স করোনায় আক্রান্ত।

জনপ্রিয়

Back To Top