‌রাজ্য বিজেপি–‌র এক দুর্মুখ নেতা বললেন, মমতা ব্যানার্জি ‘‌কৃষক–‌বিরোধী’‌!‌ কুকথা বলতে, মিথ্যা বলতে ওঁদের জুড়ি নেই। নিজেদের মধ্যে বোধহয় প্রতিযোগিতা, কে বেশি উদ্ভট কথা বলতে পারেন, কে বেশি মিথ্যাচার করতে পারেন। নম্বর পাওয়ার লড়াই। তবু, বাংলার মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জিকে ‘‌কৃষক–‌বিরোধী’‌ বলার আগে একটু, অন্তত একটু বুঝে নিতে পারতেন। পাঞ্জাব, হরিয়ানা, উত্তরপ্রদেশ–‌সহ সংলগ্ন রাজ্যগুলোর ক্ষুব্ধ কৃষকরা দিল্লি সীমান্তে অবরোধ করেছেন। ভয়ঙ্কর কৃষি বিল প্রত্যাহারের বিরুদ্ধে আপসহীন লড়াই চলছে। অনড় কেন্দ্রীয় সরকার দাবি না–‌মানলেও, আন্দোলনকারীদের সঙ্গে কথা বলতে বাধ্য হচ্ছেন। কৃষক নেতারা মন্ত্রীদের সঙ্গে বৈঠকে পরিষ্কার জানিয়ে দিচ্ছেন, সংশোধন নয়, প্রত্যাহার চাই। তিন কৃষি বিল কত ক্ষতিকর, বিল পেশের দিন থেকেই স্পষ্ট ভাষায় বলছেন মমতা। তঁার নির্দেশে দলের সাংসদরা সবচেয়ে বেশি সরব হয়েছেন। আন্দোলনকারীদের অন্যতম নেতা যোগেন্দ্র যাদব বলেছেন, সবার আগে এবং সবচেয়ে বেশি প্রতিবাদী তৃণমূল। কৃষক নেতাদের সঙ্গে ফোনে কথা বলে পাশে থাকার বার্তা দিয়েছেন বাংলার মুখ্যমন্ত্রী। অকালি নেতারা তৃণমূল নেতাদের সঙ্গে বৈঠকে ধন্যবাদ জানিয়েছেন। নন্দীগ্রাম ও সিঙ্গুরে কৃষকদের জমি নেওয়ার বিরুদ্ধে অবিস্মরণীয় লড়াই করেছেন মমতা। কৃষকরা তঁাকে বিশ্বাস করেন। মুখ্যমন্ত্রী হিসেবে কৃষক বন্ধু–‌সহ কৃষি–‌বন্ধু প্রকল্প চালু করেছেন। বাংলায় কৃষকের আয় ৯ বছরে বেড়েছে প্রায় তিনগুণ। ‘‌কৃষক–‌বিরোধী’‌ বলার আগে বিজেপি নেতারা একটু ভাবুন। ‌‌‌

জনপ্রিয়

Back To Top