ঘাটাল কেন্দ্রের তৃণমূল প্রার্থী অভিনেতা দেব। প্রচারে বলে গিয়েছেন, ভোটের দিনও বললেন, সবার কাছে আবেদন, ভোটটা শান্তিতে হতে দিন। কোনও প্রতিপক্ষের বিরুদ্ধে একটা কথাও বলেননি। বলেছেন, মমতা ব্যানার্জির কাজ দেখে ভোট দিন। বুঝতে বুঝতেই পাঁচ বছর চলে গেল, সব কাজ করতে পারিনি। যথাসাধ্য করেছি, বন্যার সময় এসেছি, সাংসদ তহবিলের টাকা সুষ্ঠুভাবে খরচ করেছি। তবু জানি, আরও করার আছে। এবার সুযোগ দিলে করব। বিজেপি প্রার্থী ভারতী ঘোষের ‘‌কেন্দ্রীয়’‌ দেহরক্ষীর গুলিতে আহত তৃণমূল কর্মী বক্তিয়ার খান। খবর পেয়েই বাড়িতে ছুটে যান দেব। আত্মীয়স্বজনকে আশ্বাস দিয়েছেন, পাশে থাকব। আহত কর্মীর কিশোর পুত্রকে জড়িয়ে ধরে সান্ত্বনা দিয়েছেন। ভোট চলছে, সময় চলে যাচ্ছে বলে এক স্থানীয় নেতা তাড়া দিলেন। দেব বললেন, ভোট হচ্ছে, হবে, কিন্তু আমি কিছুক্ষণ এ বাড়িতে থাকবই। বুথের কাছে সকালে এক ভোটদাতা। সুভদ্র দেব হাত মিলিয়ে বললেন, ভাল থাকবেন। সেই ভোটার বললেন, ‘‌আমি কিন্তু বিজেপি।’‌ দেব:‌ তাতে কী?‌ পাশাপাশি ভারতী ঘোষকে দেখুন। তাঁর গাড়িতে নিয়মবহির্ভূত টাকা ছিল, অভিযোগ। কেশপুরে গিয়ে হুমকি দিয়েছেন, ‘‌উত্তরপ্রদেশ থেকে লোক এনে পেটাব!‌’‌ ভোটের দিন সশস্ত্র রক্ষী নিয়ে গিয়েছেন বুথের একশো মিটারের মধ্যে, যা করা যায় না। বুথে ঢুকে ভিডিওগ্রাফি করছিলেন, যা চরম বেনিয়ম। অনেকে বলছেন, এক সময়ে জেলার এসপি ছিলেন, প্রচণ্ড দাপট দেখিয়েছেন, মানুষকে মানুষ মনে করেননি, এখন প্রতিফল পাচ্ছেন। পুরনো দেমাক!‌ কথাটায় সামান্য আপত্তি আছে। আমরা অনেক পুলিশ কর্তাকে চিনি, জানি। সুভদ্র, সুশিক্ষিত, সংবেদনশীল। একজনের জন্য পুলিশ অফিসারদের নামে মন্দ দাগ পড়তে দেওয়া যায় না।

জনপ্রিয়

Back To Top