GST: দেশের দ্বিতীয় সর্বোচ্চ মোট জিএসটি আয় কি শিল্প প্রগতির ইঙ্গিত? কী বলছেন বিশেষজ্ঞরা

সুশান্ত সান্যাল: ২০২১ সালের অক্টোবর মাসে সরকারি পরিসংখান অনুযায়ী দ্বিতীয় সর্বোচ্চ আয় এল জিএসটি-তে।

২১ এপ্রিলে সর্বোচ্চ জিএসটি আয় ছিল ১.৪০ লক্ষ কোটি। আর অক্টোবরে সেই আয় দাঁড়াল ১.৩০ লক্ষ কোটি, যা ২০১৭ সালের জুলাইতে নিয়ে আসা জিএসটি-এর পর দ্বিতীয় সর্বোচ্চ। গত বছরে এই মাসের তুলনায় যা ২৪% বেশি আর ২০১৯ সালের তুলনায় যা ৩৬% বেশি। তাই আশা করা যায় যে  মহামারী প্রভাব কিছুটা হলেও কাটিয়ে ফেলছে দেশ। আর তাতেই আর্থিক বিকাশের  অগ্রগতি হচ্ছে। তবে অনেকের মতে উৎসবের প্রভাব এতে বেশি। অনেকের ধারণা এই আয় আরও বাড়তে পারত যদি ছোট গাড়ি শিল্পে সেমি কন্ডাক্টর আমদানিতে সমস্যা না হত। দেশের অন্যান্য রাজ্যের মধ্যে উল্লেখযোগ্য পরিসংখ্যান হল গুজরাট আর মহারাষ্ট্রের। যেখানে এই আয় বেড়েছে যথাক্রমে ২৫% ও ২৩%। আরও উল্লেখযোগ্য হল তামিলনাড়ু আর হরিয়ানার মত গাড়ি প্রস্তুতকারক রাজ্যগুলি যেখানে বৃদ্ধি হয়েছে মাত্র ১১% আর ৩%।পশ্চিমবঙ্গের ক্ষেত্রে এই বৃদ্ধির হার ১৪%। গাড়ি প্রস্তুতকারক রাজ্যগুলো এই খরা কতদিনে কাটিয়ে উঠবে সেদিকেই থাকবে শিল্পমহলের চোখ। কারণ এই শিল্পের ওপর অনেকাংশে নির্ভর করছে বহু ছোট শিল্প, যার সঙ্গে বহু মানুষের কর্মসংস্থান জড়িত। একইসঙ্গে উল্লেখযোগ্য বৃদ্ধির হার দেখা গেছে উত্তরপূর্ব রাজ্যগুলোর ক্ষেত্রেও। যেমন সিকিম ৪৫%, মনিপুর ৪৯%, অসম ৪০%। তবে নিঃসন্দেহে এই অগ্রগতিতে খুশি সাধারণ মানুষও। কারণ এই আর্থিক বিকাশ তাঁদের কর্মসংস্থানও মজবুত করবে আগামীদিনে, এই আশা সকলের। 

 

 

আরও পড়ুন: দীপাবলির আগে সামান্য বাড়ল দৈনিক সংক্রমণ, আজ থেকেই শুরু বাড়ি বাড়ি ঘুরে টিকাকরণ কর্মসূচি 

আকর্ষণীয় খবর