আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ রাহুল গান্ধী আগেই বলেছিলেন, বাণিজ্য চুক্তি করলে দেশজুড়ে অর্থনৈতিক সংকট তীব্র হবে। অনেক মানুষ কাজ হারাবেন। চীনা দ্রব্যে ছেয়ে যাবে বাজার। ভারতীয় ব্যবসায়ীরা মার খাবেন। হয়ত তেমন কোনও আশঙ্কা থেকেই এবারে ১৬ দেশের বাণিজ্যচুক্তি থেকে সরে দাঁড়াতে চলেছে ভারত। ভারতের তরফে পারস্পরিক চুক্তির জন্য বলা হয়েছিল, যাতে ভারতও এই বাণিজ্যচুক্তির জন্য সমান সুবিধা পায়, তার ব্যবস্থা করলে তবেই দেশ এই চুক্তি স্বাক্ষর করবে। কিন্তু সেই বিষয়টি এখন বিশ বাঁও জলে পড়ল বলে মনে করা হচ্ছে। মোদি একটি ভাষণে জানিয়েছেন, ‘‌বর্তমানে যে শর্ত দিয়ে এই চুক্তি স্বাক্ষর করা হচ্ছে, তাতে বাণিজ্যচুক্তির সমস্ত দিক সমান ভাবে চিন্তা করা হয়নি। আমি চাই দেশের সর্বস্তরের মানুষ, ব্যবসায়ী, চাকুরিজীবী থেকে শুরু করে সাধারণ ছোট কৃষক বা ব্যবসায়ীরা বাণিজ্যচুক্তির মাধ্যমে সমানভাবে উপকৃত হন। কিন্তু সেটা হচ্ছে না।’‌
এই মন্তব্যের পরেই একটি জাতীয় সংবাদমাধ্যমে দাবি করা হয়েছে, ১৬ দেশের বাণিজ্যচুক্তিতে অংশ নিতে চাইছে না ভারত। রাহুল গান্ধীর মতোই দেশের তরফেও এই আশঙ্কা প্রকাশ করা হয়েছিল যে ১৬ দেশের মধ্যে যদি এই বাণিজ্য চুক্তি হয়, তাহলে ভারতের বাজার চীনা কৃষি ও অন্য নানা দ্রব্যে একেবারে ভরে যাবে। আর তাতেই ভারতীয় বাণিজ্যের প্রভূত ক্ষতি হতে পারে। এশীয় সামিট চলাকালীন এই বিষয়ের সমাধান করতে ১৬টি দেশের অর্থমন্ত্রীরা একাধিকবার আলোচনাতেও বসেছিলেন। কিন্তু সমাধান সূত্র মেলেনি। এবার প্রধানমন্ত্রী ইঙ্গিত দিলেন, ভারত এই বাণিজ্যচুক্তিতে অংশ নেবে না। ‌‌

জনপ্রিয়

Back To Top