আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ নোট বাতিল করার পর সময় অনেকটা গড়িয়েছে। কেন্দ্রীয় সরকারের দাবি ছিল, আগের ৫০০ এবং ১০০০ টাকার নোটের নিরাপদ ছিল না। তা সহজেই জাল করা যেত। তাই এবার ৫০০ টাকার মতোই ফের আরবিআই নয়া ১০০০ টাকার নোট আনতে চলেছে বলে খবর৷ শীঘ্রই বাজারে বহু প্রতীক্ষিত ১০০০ টাকার নোট চালু করতে চলেছে রিজার্ভ ব্যাঙ্ক অফ ইন্ডিয়া৷ যা থাকবে আরও নিরাপদ।
কালো টাকা এবং জাল নোট রুখতেই সরকার নোট বাতিলের সিদ্ধান্ত নিয়ে ছিল। অর্থনৈতিক বিষয়ক সচিব শক্তিকান্ত দাস জানান, সন্ত্রাসবাদীদের হাতে টাকা চলে যাচ্ছিল। তা রুখতেই এই পদক্ষেপ করা হয়েছিল। তবে এবার কম অঙ্কের টাকা নতুন ধাঁচে নিয়ে আসা হবে। সূত্রের খবর, আগামী ডিসেম্বর থেকেই পাওয়া যাবে নয়া ডিজাইনের ১০০০ টাকার নোট৷ সরকারের পক্ষ থেকে অনুমতি পাওয়ার পরই শুরু হয়ে যাবে নতুন নোট ছাপার প্রস্তুতি৷ মহীশূর এবং শালবনির সরকারি টাঁকশালে নয়া ১০০০ টাকার নোট ছাপা হবে৷ যার রঙ, থিম এবং মাপ অন্যরকমের হবে। ফলে জাল করা যাবে না।
উল্লেখ্য, ২০০০ টাকার নোট খুচরো করাতে সমস্যায় পড়তে হয় সাধারণ মানুষকে। তার জন্যই এবার ছোট ছোট অঙ্কের নোট একে একে বাজারে আনছে আরবিআই৷ খুচরোর সমস্যা সমাধানের জন্য ইতিমধ্যেই ২০০ এবং ৫০ টাকার নোট বাজারে আনা হয়েছে। নয়া ১০০০ টাকার নোটে থাকবে উন্নত সিকিউরিটি ফিচার৷ যাতে নোট জাল করা আটকানো যাবে৷ কয়েকদিন আগেই কেন্দ্রের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছিল প্রত্যেক তিন থেকে চার বছর অন্তর বিশেষ সুরক্ষা চিহ্ন বদলের কথা ভাবা হচ্ছে৷ 
গত ৮ নভেম্বর ২০১৬ সালে কালো টাকা দূর করতে ৫০০ এবং ১০০০ টাকার নোট বাতিলের ঘোষণা করেছিলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি৷ কিন্তু নোট বাতিলের পরবর্তী সময়েও দেশ থেকে জাল নোটের অস্তিত্ব মুছে ফেলা সম্ভব হয়নি। গত কয়েক মাসে দেশের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে বিপুল পরিমাণ জাল নোট উদ্ধার করা হয়েছে৷ নোটগুলি এত নিখুঁতভাবে জাল করা হয়েছে যে সাধারণ মানুষের পক্ষে তা যাচাই করা প্রায় অসম্ভব৷ তাই জাল নোট রুখতেই নিরাপত্তা বৈশিষ্ট্যে পরিবর্তন আনার কথা ভাবা হয়।

জনপ্রিয়

Back To Top