আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ বিটকয়েন নিয়ে সারা পৃথিবীতে বিতর্ক তুঙ্গে। বিশেষজ্ঞদের মতে এই ডিজিটাল মুদ্রা আদতে অর্থনীতির চূড়ান্ত ক্ষতি করবে। ভারতেও নিষিদ্ধ করা হয়েছে এই ধরনের মুদ্রা। কিন্তু তারই মধ্যে জানা গেল নতুন খবর। ভারতীয় বাজারের জন্য বিটকয়েনের মতোই নতুন ক্রিপ্টোকারেন্সি আনছে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির ঘনিষ্ঠ মুকেশ আম্বানির সংস্থা জিও।  এই নতুন মুদ্রার নাম হবে জিওকয়েন। প্রশ্ন উঠছে সরকারি নিষেধাজ্ঞা সত্ত্বেও কী ভাবে ক্রিপ্টোকারেন্সি আনার কথা ভাবছে জিও!‌ প্রাথমিকভাবে ৫০ জন কর্মীকে নিয়ে শুরু হচ্ছে ক্রিপ্টোকয়েনের কাজ। পুরো প্রকল্পটির দেখভাল করবেন মুকেশের বড় ছেলে আকাশ। এরপরে জিও পরিষেবাকেও এই ক্রিপ্টোকয়েন লেনদেনের আওতায় আনা হতে পারে। তবে বিষয়টি ভারতীয় অর্থনীতির পক্ষে মোটেও ভাল হবে না বলেই মনে করেন বিশেষজ্ঞরা। তার কারণ হিসাবে তাঁরা জানাচ্ছেন, এক্ষেত্রে হ্যাকিংয়ের সম্ভাবনা যথেষ্টই বেশি। তাছাড়া বিটকয়েনের মাধ্যমে ‘‌হ্যাশিং পয়েন্ট’‌–এর সম্ভাবনাও দেখা যেতে পারে।

জনপ্রিয়

Back To Top