Share Market Investment: শেয়ার বাজারে বিনিয়োগ করেন?‌ ‌ভাগ্য বদলে দিতে পারে IPO

আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ অনেকেই শেয়ার বাজারে বিনিয়োগ করেন, কিন্তু প্রাথমিক পাবলিক অফারে (‌‌আইপিও)‌ অনেকেই আবেদন করেন না।

বলা ভাল, বেশিরভাগ বিনিয়োগকারীই ঝুঁকি নেন না। কিন্তু জানেন কি আইপিও বদলে দিতে আপনার ভবিষ্যত?‌ হ্যাঁ, ছোট চারাগাছ নিমেষেই মস্ত বড় বটগাছ হয়ে উঠতে পারে। এমনিতেই ব্যাঙ্কে সুদের হার ক্রমাগত নিম্নমুখী। তাই ধীরে ধীরে অনেকেই শেয়ার বাজারের দিকে ঝুঁকছেন। শেয়ার বাজারের নিয়ম অনুযায়ী আইপিও-‌তেও কিছুটা ঝুঁকি রয়েছে। তবে যেই পরিমাণ শেয়ারের জন্য আপনি আবেদন করবেন তা না পেলে অবশ্য টাকা ফেরত পেয়ে যাবেন। আইপিও-‌তে আবেদন করার আগে কতগুলি বিষয়ে সতর্ক থাকতে হবে।

১)‌ আইপিও-তে বিনিয়োগ করার আগে কোম্পানি, তার ব্যাকগ্রাউন্ড, ফাইন্যান্সিয়াল, ভবিষ্যতের চিন্তাভাবনা সম্পর্কে ওয়াকিবহাল হতে হবে।
২)‌ IPO লকিং পিরিয়ড নোট করতে হবে। লকিং পিরিয়ড একটি সময়কাল যাতে আপনি প্রাথমিক বিনিয়োগের পরে স্টকগুলি বিক্রি বা ট্রেড করতে পারবেন।
৩)‌ যে কোনও IPO-তে বিনিয়োগ করার আগে সবসময় একটি বিনিয়োগের কৌশল পরিকল্পনা করতে হবে।

আরও পড়ুন:‌ শুক্রবার নয়া জাতীয় কর্মসমিতির বৈঠকের ডাক মমতার, পদাধিকারীদের নাম ঘোষণার সম্ভাবনা

আইপিও-‌তে বিনিয়োগ করে ভাল রিটার্ন পেয়েছেন এমন কয়েকটি উদাহরণ দেওয়া যাক। Zomato‌ গত বছরের জুন মাসে শেয়ার ববাজারে এসেছিল। আইপিও ছিল শেয়ার প্রতি ৭৬ টাকা। প্রথম দিনে আত্মপ্রকাশ করেই দাম ওঠে ১২৩ টাকায়। আট মাস বয়সের এই শেয়ারের সর্বাধিক দাম উঠেছিল ১৫৪ টাকায়। অর্থাৎ, ১০০ শতাংশেরও বেশি বৃদ্ধি হয়েছিল এই শেয়ারের। বর্তমানে এই শেয়ারের দাম ৮২ টাকার আশেপাশে। যা আইপিও-‌র দামের চেয়ে ১০ শতাংশ বেশি। উল্লেখ্য, আগামী কয়েক দিনের মধ্যেই এলআইসি-‌র আইপিও বাজারে আসছে। এত বড় আইপিও আগে কখনও আসেনি বলেই খবর। বাজার বিশেষজ্ঞদের ধারণা, প্রতিটি শেয়ারের আইপিও মূল্য ১৬৯৩ টাকা থেকে ২৯৬২ টাকা হতে পারে। তবে লটে কটি করে শেয়ার থাকবে তা এখনও জানা যায়নি।

আকর্ষণীয় খবর