আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ ‌দেশের অর্থনৈতিক অবস্থা যে একেবারেই স্বস্তিদায়ক নয়, তার প্রমাণ আরও একবার পাওয়া গেল বুধবার। দেশের বৃহত্তম গাড়ি তৈরির কোম্পানি মারুতি সুজুকি গাড়ি তৈরির কাজ বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত। বুধবার সকালে মারুতি জানিয়ে দিয়েছে, আগামী ৭ সেপ্টেম্বর ও ৯ সেপ্টেম্বর, এই দু’‌দিন হরিয়ানার গুরুগ্রাম ও মানেসারে দুটি গাড়ি তৈরির কারখানায় সমস্ত কাজ বন্ধ রাখা হবে। এই দু’‌দিন উ‍‌ৎপাদন বন্ধ থাকবে। 
দেশের গাড়ি শিল্প অর্থনীতির একটি বড় সূচক। এই শিল্পে কর্মী ছাঁটাই, উৎপাদন কমে যাওয়ার খবর আগেই শোনা গিয়েছে। কারণ গাড়ির বিক্রি আগের চেয়ে অনেক কমে গিয়েছে। গত আগস্ট মাসেই মারুতি ৩৩.‌৯৯ শতাংশ উৎপাদন কমিয়ে দিয়েছে। শুধু আগস্ট মাসেই নয়, গত সাত মাস ধরেই গাড়ির উৎপাদন একটু একটু করে কমিয়েছে মারুতি কোম্পানি। গত রবিবারই মারুতি কোম্পানি জানিয়েছে, গত আগস্ট মাসে কোম্পানির বিক্রি এক তৃতীয়াংশেরও বেশি কমেছে। গত বছর আগস্ট মাসে মারুতি কোম্পানির যা বিক্রি হয়েছিল, তার চেয়ে ৩৪.‌৩ শতাংশ কম বিক্রি হয়েছে এই বছর আগস্টে। শুধু মারুতি নয়, অলটো ও ওয়াগনার কোম্পানির বিক্রি গত বছরের তুলনায় এ বছর ৭১.‌৮ শতাংশ কমে গিয়েছে। 
সুইফ্ট, সেলেরিও, ইগনিস, ডিজায়্যার কোম্পানির বিক্রি প্রায় ২৩.‌৯ শতাংশ কমে গিয়েছে। গত বছরের তুলনায় এবছর গাড়ি রপ্তানিও ১০.‌৮ শতাংশ কমে গিয়েছে।
দেশের গাড়ি শিল্পে এমন পরিস্থিতি আগে কোনওদিন হয়নি বলেই মনে করছেন বিশেষজ্ঞরা। গাড়ির বিক্রি নেই। ফলে উৎপাদন কমিয়ে দিচ্ছেন কোম্পানিক মালিকেরা। খরচ কমাতে কর্মী ছাঁটাইয়ের সিদ্ধান্ত নিতেও বাধ্য হচ্ছেন তাঁরা। এই মুহূর্তে দেশের অর্থনীতিকে চাঙ্গা করতে একের পর প্রকল্প মোদি সরকার নিচ্ছে ঠিকই। কিন্তু পরিস্থিতি আরও খারাপের দিকেই এগোচ্ছে, মনে করছেন অর্থনীতিবিদরা। ‌‌

জনপ্রিয়

Back To Top