আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ খাদ্যদ্রব্যের মূলবৃদ্ধির জেরে জুলাই মাসে অনেকটাই বেড়ে গেল খুচরো মূল্যসূচক। কেন্দ্রীয় পরিসংখ্যান এবং প্রকল্প রূপায়ণ মন্ত্রকের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, গত মাসে দেশে খুচরো মূল্যসূচক বা কনজিউমার প্রাইস ইন্ডেক্স (‌সিপিআই)‌ বেড়ে দাঁড়াল ৬.‌৯৩%। তার আগের মাসে অর্থাৎ জুন মাসেই খুচরো মূল্যসূচকের লক্ষ্যমাত্রা ৬.‌০৯% থেকে বাড়িয়ে ৬.‌২৩% করা হয়েছিল। বিশেষজ্ঞদের বক্তব্য, করোনা সঙ্কটে খাদ্য দ্রব্যের দাম অস্বাভাবিক হারে বাড়তে থাকায় মূল্য সূচক এতোটা বেড়েছে! কেন্দ্র জানাচ্ছে, জুলাই–তে খাদ্যপণ্যের মূল্য সূচক পৌঁছে গেছে ৯.‌৬২%–এ। জুনেই লক্ষ্যমাত্রা ৭.‌৮৭% থেকে ৮.‌৭২% বাড়ানো হয়েছিল।‌ আমজনতার উপর দ্রব্যমূল্যের বোঝা কতটা বাড়ল বা কমল, সেটাই নির্ধারণ করে সিপিআই। জিনিসপত্রের দাম বাড়া–কমার সঙ্গে সমানুপাতিক এই সূচক।
দেশের অতিমারীর ধাক্কার আগে থেকেই বাড়ছিল মূল্যবৃদ্ধি।     রিজার্ভ ব্যাঙ্ক সাধারণত খুচরো মূল্যসূচক সর্বোচ্চ কত বাড়তে পারে, তার আগাম আঁচ করে একটি সংখ্যা জানায়। চলতি আর্থিক বছরে শীর্ষ ব্যাঙ্কের লক্ষ্যমাত্রা ২–৬ শতাংশ। জুলাই–তে আরবিআই–এর ভবিষ্যতবাণীর উর্ধ্বসীমা ছাড়িয়ে গেল সিপিআই। মূল্যবৃদ্ধি যাতে স্বাভাবিক স্তরে রাখা যায়, তার জন্য রেপো রেটও না বাড়ানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছেন গভর্নর শক্তিকান্ত দাস। 

জনপ্রিয়

Back To Top