আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ আমেরিকা–চীন ঠান্ডা লড়াই এবার পৌঁছল ব্যবসায়িক স্তরেও। আমেরিকায় চীনের কমিউনিস্ট সেনাবাহিনী পরিচালিত বেশ কয়েকটি সংস্থা ব্যবসা করছে। এবার সেই ধরনের ২০টি কোম্পানির তালিকা প্রকাশ করা হল মার্কিন বাহিনীর সদর দপ্তর পেন্টাগন থেকে। এর মধ্যে রয়েছে হুয়াওয়েই টেকনোলজিস কোম্পানি ও হ্যাংঝৌ হিকভিশন ডিজিটাল টেকনোলজি কোম্পানি। মনে করা হচ্ছে খুব শীঘ্রই এই ২০ টি চীনা সংস্থার ওপরে নিষেধাজ্ঞা জারি করতে পারে আমেরিকা। আর সেই কারণেই এই তালিকা প্রকাশ। গত ২৪ জুন পেন্টাগন থেকে মার্কিন কংগ্রেসে ওই তালিকা পাঠানো হয়েছে বলে খবর। ১৯৯৯ সালে নিরাপত্তা সংক্রান্ত আইনে এই তালিকা তৈরি করা হয়েছে।
এই প্রসঙ্গে পেন্টাগনের মুখপাত্র জোনাথন হফম্যান এক বিবৃতিতে জানান, ওই সংস্থাগুলিকে চীনের সেনাবাহিনী দ্বারা নিয়ন্ত্রিত। এর সঙ্গেই তিনি যোগ করেন, ‘‌চীনের সরকার বর্তমানে নিজের অসামরিক ও সামরিক সংস্থার মধ্যে বিশেষ পার্থক্য রাখতে চায় না। তাই কোনও চীনা সংস্থার থেকে পণ্য আমদানি করার আগে তার পরিচয় জানা বিশেষ জরুরি। আমরা যে তালিকা বানিয়েছি, তাতে আমেরিকার সরকার, বিভিন্ন কোম্পানি, বিনিয়োগকারী এবং শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের সুবিধা হবে।’‌ যদিও পেন্টাগন থেকে সরাসরি চীনা সংস্থাগুলির ওপরে নিষেধাজ্ঞা জারির কথা বলা হয়নি। কিন্তু পর্যবেক্ষকদের মতে, সম্প্রতি চীন ও আমেরিকা সম্পর্কের গুরুতর অবনতি ঘটেছে। আর তাই কোপ পড়তে পারে এই সংস্থাগুলোর উপর। এদিকে, ইতিমধ্যে এই তালিকার বিষয়ে প্রতিক্রিয়া দিয়েছে হিকভিশন। পেন্টাগনের বক্তব্যকে ভিত্তিহীন দাবি করে কোম্পানি জানিয়েছে যে, তাঁরা কোনও সরকারের অধীন নয়, তাঁদের মালিকানার কথা আগেই প্রকাশ্যে ঘোষণা করা হয়েছে। এর পাশাপাশি তাঁরা আমেরিকার সরকারের সঙ্গে ভুল বোঝাবুঝি দূর করার চেষ্টা করবেন বলেও জানিয়েছে।  

জনপ্রিয়

Back To Top