আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ ‌অতিমারীর ধাক্কায় লন্ডভন্ড দেশের অর্থনীতি। তবুও ২ হাজার কোটি ডলার বিনিয়োগের মুখ দেখেছে ভারত। সম্প্রতি কেন্দ্রীয় বিদেশমন্ত্রক জানিয়েছে, এপ্রিল–জুলাইতে লকডাউনের মধ্যেও ভারতে ১৫টি কোম্পানি বিনিয়োগ করেছে। টাকা ঢেলেছে গুগল, ওয়ালমার্ট, ফেসবুক, হিটাচি। সম্পতি গুগল কর্ণধার সুন্দর পিচাই জানিয়েছে, আগামী ৫–৭ বছরের মধ্যে ভারতের যৌথ প্রকল্প এবং ইক্যুইটি বাজারে হাজার কোটি ডলার বিনিয়োগ করা হবে। সংস্থার পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, দেশের প্রতিটি নাগরিকের ঘরে ঘরে তথ্য এবং ইন্টারনেটা পরিষেবার পৌঁছে দেওয়ার কাজ করবে গুগল। দেশীয় ই–কমার্স সংস্থা ফ্লিপকার্টে প্রায় ১২০ কোটি ডলার বিনিয়োগের কথা ঘোষণা করেছে ওয়ালমার্ট। ইলেকট্রনিক্স পণ্য নির্মাতা সংস্থা ফক্সকন ঘোষণা করেছে, দক্ষিণ ভারতে ১০০ কোটি ডলার বিনিয়োগ করবে সংস্থা। গত এপ্রিলে রিলায়েন্স জিও প্ল্যাটফর্মে ৫৭০ কোটি ডলার লগ্নির কথা ঘোষণা করে ফেসবুক। আমেরিকার কর্পোরেট ভেঞ্চার ক্যাপিটাল ফান্ড কোয়ালকম ভেঞ্চারস ঘোষণা করেছে, জিও প্ল্যাটফর্মসে তারা বিনিয়োগ করবে ৭৩০ কোটি টাকা। আগামী পাঁচ বছরে ভারতে এক হাজার কোটি টাকা বিনিয়োগের ঘোষণা করেছে ফরাসি কোম্পানি টমসন। স্মার্ট টিভির পাশাপাশি ভারতে ওয়াশিং মেশিনের বাজারও ধরতে চাইছে ফ্রান্সের এই সংস্থা। ভারতীয় রেলের জন্য ইলেকট্রনিক লোকোমোটিভ পণ্য তৈরি করার কথা ঘোষণা করেছে জাপানি সংস্থা হিটাচি। এক্ষেত্রে তারা ১ কোটি ৫৯ লক্ষ ডলার বিনিয়োগ করতে চায়। ভারতে আরও বিনিয়োগের ঘোষণা করেছে উইওয়ার্ক, দক্ষিণ কোরিয়ার সংস্থা কিয়া মোটর্স, সৌদি আরবের পাবলিক ইনভেস্টমেন্ট ফান্ড, দক্ষিণ কোরিয়ার গাড়ির যন্ত্রাংশ নির্মাতা সংস্থা হুন্ডাই মোবিস, অ্যামাজনের সহযোগী সংস্থা এসজিএস, আন্তর্জাতিক ডেটা সফটওয়ার সংস্থা অ্যাক্সটেরিয়া, জাপানের ইলেকট্রনিক্স সংস্থা সুজুকি এবং স্যামসাং। 

জনপ্রিয়

Back To Top