আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ রেকর্ড ছুঁলো রিজার্ভ ব্যাঙ্কের বিদেশি মুদ্রার ভান্ডার। আগস্টের শেষ সপ্তাহেই প্রায় ৪০০ কোটি ডলার ঢুকেছে ভাঁড়ারে। সব মিলিয়ে এই প্রথম দেশে বিদেশি মুদ্রার সঞ্চয় পৌঁছে গেছে প্রায় ৫৪,‌২০০ কোটি ডলারে। শুক্রবার রিপোর্ট দিয়ে এই তথ্য দিল আরবিআই। লকডাউনে দেশের পণ্যে চাহিদা কমতে থাকায় আমদানি অনেকটাই কমেছে। যার জেরে জুনেই সঞ্চয় রেকর্ড অঙ্ক ছুঁয়েছিল। 
প্রাথমিকভাবে দেশে বিদেশি মুদ্রার সঞ্চয় বাড়লে স্বস্তিতে থাকে সরকার। কিন্তু বর্তমান পরিস্থিতিতে বিদেশি মুদ্রার রেকর্ড সঞ্চয় সরকারের দুশ্চিন্তা বাড়াতে পারে, দাবি অর্থনীতিবিদদের একাংশের। বিদেশি মুদ্রা ব্যয় হচ্ছে না মানেই বাজারে চাহিদা বাড়ার নাম নেই। চাহিদা না বাড়লে আবার উৎপাদনও থমকে থাকবে। আবার ফরেক্স রিজার্ভ এখন বাড়ছে মানে, ধরে নেওয়া যেতে পারে, দেশের নতুন এবং বড় অঙ্কের পুঁজি ঢুকছে। ভারতে লগ্নি বাড়াতে উৎসাহ পাচ্ছেন বিনিয়োগকারীরা। করোনা আবহে বিশ্বজুড়ে অপরিশোধিত তেলের দাম কমে যাওয়ায় আমদানির খরচও কমেছে।   
জিডিপির ঐতিহাসিক পতন, বাণিজ্য এবং শিল্পোৎপাদন স্তব্ধ হয়ে থাকার খারাপ খবরের মাঝে বিদেশি মুদ্রার রেকর্ড সঞ্চয় অনেকটাই স্বস্তি দেবে কেন্দ্রকে, মত অনেকের। কারণ অতিমারী পরবর্তী সময়েও যদি অর্থনীতির চাকা ঘুরতে বেশি সময় নেয়, তাহলে এই বিদেশি মুদ্রা খরচ করেই পরিস্থিতির মোকাবিলা করতে পারবে কেন্দ্র এবং রিজার্ভ ব্যাঙ্ক। 

জনপ্রিয়

Back To Top