মনসিজ মজুমদার

রচনাসমগ্র ২খ •‌ শিশু ও কিশোর সাহিত্য •‌‌ অবনীন্দ্রনাথ ঠাকুর •‌ সম্পাদনা সুধাংশুশেখর মুখোপাধ্যায় • দে’‌জ পাবলিশিং •‌ ৫০০ টাকা‌
ভারতীয় শিল্পকলার ইতিহাসে অবনীন্দ্রনাথের যে পরিচিতি, তার ভগ্নাংশও ভারতীয় সাহিত্যের ইতিহাসে নেই। কারণ কী জানা নেই, তবে আগে মনে হত তিনি শিশু–‌সাহিত্যের রচয়িতা বলে। বহুদিন আগে এক হিন্দি লেখক বলেছিলেন, হিন্দিতে বড় ও বিখ্যাত লেখকদের কেউ শিশু–‌সাহিত্য রচনা করেননি। আর বুদ্ধদেব বসু বলেছিলেন, বাংলায় শিশু–‌সাহিত্যের স্বর্ণযুগে সব বড় বড় প্রতিভা শিশুদের জন্য লিখেছেন। তবে অবনীন্দ্র–‌সাহিত্যের জাদু বা রস তাঁর ভাষায়। তাঁর অনবদ্য ভাষা অনুবাদ্য নয় বলেই তিনি ভিন্ন ভাষায় অপঠিত। সব মহৎ সাহিত্যই ভাষার প্রতিমা, অনুবাদে তার মৌলিক স্বাদ অটুট থাকে না। কিন্তু অবনীন্দ্রনাথের বাংলা, তাঁর গপ্পের, অনেক সময় তাঁর স্মৃতিচারণার বাংলা একটা সময়ের কলকাতার নাগরিক সংস্কৃতি, ঘরানা ও মেজাজকে ধরে রেখেছে, সেই সঙ্গে আছে তাঁর রসিক মনের আভিজাত্য ও ব্যক্তিত্ব, যা কোনও দিনই অনুবাদ করা যাবে না। হয়তো কয়েক প্রজন্ম পরের বাঙালিরাই তা বুঝে উঠবে না।
অবশ্য অবনীন্দ্র–‌সাহিত্যের যেমন, তাঁর ভাষার রং ও সুরের বৈচিত্র্যও তেমনই। বাগীশ্বরী শিল্প প্রবন্ধাবলী, রাজকাহিনী, নালক, শকুন্তলা থেকে ক্ষীরের পুতুল, ভূতপত্‌রীর দেশে পৌঁছলে তা বোঝা যাবে। এখানে আলোচ্য তাঁর রচনাবলির সেই খণ্ড, যাতে গ্রন্থিত হয়েছে তাঁর শিশু ও কিশোর সাহিত্য। যদিও এক খণ্ডে অবনীন্দ্রের শিশু–‌কিশোর সাহিত্য সবটুকু সঙ্কলিত করা যায়নি।
ক্লাসিকগুলির অধিকাংশই এই খণ্ডে নেই। এখানে স্থান পেয়েছে বিখ্যাত বুড়ো আংলা, আলোর ফুলকি, বাদশাহী গল্প আর খাতাঞ্চির খাতা। আর আছে ছড়া, কবিতা আর গল্প–‌কণিকার মতো গল্পস্বল্প।
এসব রচনা নাকি তিনি লিখেছিলেন তাঁর আদরের নাতি–‌নাতনিদের মনে রেখে। যারা তাঁকে সমবয়সি মনে করত, আর তিনিও তাঁদের ‘‌সমবয়সী’‌ ছিলেন। ছেলেবেলায় যখন পড়েছিলাম, আমাদেরও তাই মনে হত। কিন্তু এখন পড়তে গিয়ে দেখি, ছেলেবেলার পাঠকমন হারিয়ে গেছে কিন্তু ‘‌other gifts have followed’‌‌,‌ পরিণত পাঠকের বিচারবোধ এবং মূল্যায়ন। এখন তিনি নিপুণ ভাষাশিল্পী, দুরন্ত খেয়ালি কল্পনা আর অফুরান রসিকতা আর ‘‌ছবি লেখে’‌র ওবিন ঠাকুর। পাতায় পাতায় তাঁর নিজের ভাষায় ‘‌কল্পনার হিস্টিরিয়া’‌ আর রবীন্দ্রনাথের মতে ‘‌পাগলামির কারুকার্য’‌।‌
এক বুড়ো আঙুল প্রমাণ হৃদয়হীন রিদয় তার হৃদয় ফিরে পেতে সারা বাংলার শহর–‌গ্রাম, নদী–‌পাহাড়, বন–‌জঙ্গল পেরিয়ে উত্তর থেকে দক্ষিণ, পুব থেকে পশ্চিমে, নানা পাখির ঝাঁকের সঙ্গে খোঁড়া হাঁস সুবচনীর পিঠে ভালবাসার নরম পালকের মধ্যে বসে, যেখানেই উড়ে চলে, সেখানেই তার অভিযান–‌সঙ্গী গল্প আর ভাষার জাদুতে মন্ত্রমুগ্ধ ছেলে–‌বুড়ো সব পাঠক। সেলমা লাগেরলোফ–‌এর ‘‌নীলের অভিযান’‌ যার থেকে অবনীন্দ্রনাথ আইডিয়া পেয়েছিলেন, তার শীর্ণ কাঠামো এখানে খুঁজে পাওয়া গেলেও গল্প কোথাও আমতলি থেকে কৈলাসের পথ ছেড়ে ভিন দেশে যায় না। আর রিদয় থেকে সুবচনী, চকা থেকে বালিহাঁস, হাড়গিলে থেকে পেঁচো, খটাস থেকে নেউল, বুধিগাই থেকে কাঠবেড়ালি, আঁধি ধাদি ভূত, পেত্নি, ব্রহ্মদৈত্যি, ঝামঝামড়ি, স্কন্ধকাটা, শাকচুন্নি, ডাকিনী–‌যোগিনী, ভ্যাল ভেলকি, পেটকামড়ি— সকলেরই দেশ ‘‌‌সেরা দেশ–‌সোনার দেশ–‌সবুজ দেশ–‌ফলন্ত–‌ফুলন্ত বাঙলা–‌দেশ’‌।‌
সব রচনাতেই মজার চরিত্র, মজার ঘটনা এবং রসিকতায় মজানো অজস্র ব্যাপার আছে। যেমন আছে দাদামশায়ের গপ্পে রাতের কলকাতা কেমন বাগান–‌বাজার, মাঠ আর পুকুরে ভরে যায় রাত্রি নটার কেল্লার তোপ পড়লে!‌ আর আছে কল্পনা–‌বাস্তবে মেশানো দিনের কলকাতা। এই খাতাঞ্চির খাতায় যেমন আছে হাড়–‌কিপ্টে খাতাঞ্চি, তেমনি খাতাঞ্চি–‌গিন্নি তাঁর যমজ ছেলে, আঙ্গুটি পাঙ্গুটিকে ঘুম পাড়িয়ে তাদের মন হাতড়ে পেলেন লুকোনো সিন্দুকের মধ্যে রাখা খাতার পাতায় খানিক–‌পাখি খানিক–‌মানুষ একজনকার চেহারা।  শিশু থেকে বুড়ো— সকলের মন মজিয়ে রাখতে অবনীন্দ্রনাথের দুর্নিবার কল্পনার অন্যতম পরিচয় যেমন গপ্প বানানোর অলৌকিক শক্তি, যেমন তাঁর ছবিলেখার ক্ষমতায় ভাষা হয়ে ওঠে চিত্রময়, তেমনি তাঁর গদ্য বাজে শব্দের ঝংকারে। তিনি যে মূলত কবি, তাঁর নানা দৃষ্টান্ত এই গ্রন্থে সঙ্কলিত হয়েছে ‘‌ছড়া ও কবিতা’‌ শিরোনামে। এ ছাড়াও তাঁর কবি–প্রতিভার জাদুস্পর্শে প্রাণিত তাঁর গদ্যের শরীর, বর্ণছন্দময় শব্দের ঝংকারে স্পন্দিত। ধ্বনি ও বাক, দুটি অর্থেই তিনি শব্দের জাদুকর। ধ্বনিকে যেমন অর্থবহ করেন, তেমনি অর্থকে নিষ্ক্রিয় করে বাকের বিশুদ্ধ ধ্বনি দিয়ে গড়ে তোলেন বিচিত্র সিম্ফনি।
অবনীন্দ্রনাথের গদ্য অনায়াসে কবিতা, পদ্য ও ছড়া হয়ে ওঠে। তাঁর ছবি ও সাহিত্য, কবিতা ও গপ্প, তাঁর পদ্যের গদ্য এবং গদ্যের পদ্য— সব রচনাতেই একাকার হয়ে যায়। প্রতিটি গপ্প অনেক সময় মনে হতে পারে ব্রের র‌্যাবিট বা ডোনাল্ড ডাকের মতো, মজাদার আবহ শব্দ ও সঙ্গীত–‌সমেত বিশুদ্ধ কমিক কার্টুন ফিল্ম।
বইটির সম্পাদক সম্পাদনার কাজে অসামান্য যত্ন ও পরিশ্রম করেছেন। অতি সুলিখিত ‘‌উত্তরকথা’‌ ছাড়াও গ্রন্থপরিচয় ও গ্রন্থপঞ্জিতে যাবতীয় তথ্যের সমাবেশে অবনীন্দ্র রচনাবলির এই সংস্করণ সাহিত্য–‌প্রকাশনায় অমূল্য সংযোজন।‌‌‌‌‌‌ ■ 

জনপ্রিয়

Back To Top