গৌরীশংকর বন্দ্যোপাধ্যায়: শতগানের গানমেলা •‌ সুধীর চক্রবর্তী •‌‌ প্রতিভাস •‌ ৫০০ টাকা

গান নিয়ে লিখছেন সুধীর চক্রবর্তী। এই সুসমাচারটি বাঙালি গানপাগলদের আজও উৎসুক করতে যথেষ্ট। প্রমাণ মিলেছিল যখন আজকাল–এর রবিবাসরে ধারাবাহিক ভাবে বেরোতে শুরু করেছিল তঁার ‘‌গানমেলা’‌। আর, এ–‌কথা কে না জানেন, সুধীর চক্রবর্তীর কলম মানেই পাঠকের প্রাপ্তির ঝুলিটা ভরে ওঠা!‌ টানা দুটি বছর ধরে ফি–সপ্তাহে ‘‌গানমেলা’‌য় আসর জমাতেন বাংলা সাহিত্যের রসজ্ঞ এই অধ্যাপক— সংগীত, বিশেষ করে বাংলা গান যঁার আমর্ম অনুধ্যান। তুমুল পাঠকপ্রিয় সেই রচনাবলিতে ঠঁাই পেয়েছিল ১০০ গান, যেগুলি নিয়ে ময়নাতদন্ত ঠিক নয়, সে–সব গানের প্রকাশ–তথ্য, নির্মাণকথা, বাণীরূপ ও সুর–‌ব্যবহারের বিশ্লেষণ এবং সমাজতত্ত্বগত ব্যাখ্যান পাওয়া যেত সুধীরবাবুর আশ্চর্য মরমি ভাষায়। ‘‌গানমেলা’‌র গানগুলি বহুশ্রুত ও জনাদৃত বলেই হয়তো পাঠকের আগ্রহ ছিল আরও বেশি। ৮৭টি বাংলা, ১০টি হিন্দি আর ৩টি ইংরেজি গানের বিস্তৃত বিশ্লেষ নিয়ে ব্যতিক্রমী সেই রচনাগুলিই পরিমার্জিত–‌পরিবর্ধিত চেহারায় এবার ধরা দিল ‘‌শতগানের গানমেলা’‌য়। বেশির ভাগ গানই বেসিক রেকর্ডের। এ ছাড়া কিছু ফিল্মি, কয়েকটি গণসংগীত, লোকগীত, স্বদেশগীতি, হাসির গান, আগমনি, সাম্প্রতিকের গান। এই ‘‌গানমেলা’‌য় বাদ পড়েননি যেমন রবীন্দ্রনাথ–অতুলপ্রসাদ, তেমনই রয়েছেন এ–‌সময়কার প্রতুল–সুমন–অঞ্জনেরা, অর্ণা–অনুপমেরা। ব্রাত্য থাকেনি এমন–‌কি ‘‌টুনির মা’ও!‌ এবং, সেখানে সুধীর–ভাষ্যে কী অনিবার্য উপসংহার:‌ ‘‌বিধ্বংসী ড্রাগের নেশাতুর ভ্রষ্ট সমাজ আর ফ্যানটাসি কিংডমে এ গানের কোনো মার নেই। সেই সঙ্গে অবশ্যই অনুমান করা চলে যে অচিরে এর চেয়েও রসালো গরমমশলা দেওয়া অন্য একটা উত্তেজক গান বাজারে এসে পড়বে এবং টুনির মা কেটে পড়বে!‌’‌ আবার, পাশাপাশি, পান্নালাল ভট্টাচার্যের অতি–‌বিখ্যাত ‘‌আমার সাধ না মিটিল’‌ গানের আলোচনায় তিনি যখন লিখছেন ‘‌এ একেবারে গড় বাঙালির সবচেয়ে আন্তরিক মর্মগাথা’‌, রসিক পাঠকের সাধ্য নেই ভিন্নমত পোষণের।‌‌ নানা গানের নানা কথায় বব ডিলানও বাইরে–‌দূরে দঁাড়িয়ে থাকেননি, এসে পড়েছেন অবধারিত ভাবেই। ‘‌হাউ মেনি রোড্‌স’‌–এর ভেতরকথা বলতে গিয়ে লেখকের উপলব্ধি:‌ ‘‌কবে আমি বাহির হলেম’‌ বলে আমাদের যে অন্তহীন মানবযাত্রা, তার অভিমুখ আর সিদ্ধি নিয়েই প্রশ্ন তুলে দিয়েছেন ডিলান। এবং যার ‘‌উত্তর নেই, সবই নিশ্চুপ’‌।
ভূমিকা নয়, ‘‌আত্মপক্ষ’য় লেখক জানিয়ে দিয়েছেন, ‘‌শতগানে গঁাথা এই গানমেলা নিছক কোনো সংকলন ও ভাষ্যরচনা নয়, একজন দীর্ঘকালীন শ্রোতা ও সমঝদারের জীবনব্যাপী গান নিয়ে পাগলামির বৃত্তান্ত।’‌ আমরা বলব, পাগলামি কেন হবে, তঁার গান শোনার অমেয় অভিজ্ঞতা আর সুপরিণত সংগীতবোধের হাত ধরেই তো পাঠক–শ্রোতা এই সব লোকপ্রিয় গানের গভীরে পৌঁছে গিয়েছেন, শ্রুতির স্মৃতিকে উজ্জীবিত করেছেন, অনুভবকে করে তুলেছেন শাণিত অথচ সঘন। গান ভালবাসেন যঁারা, তঁাদের কাছে রাখার মতো এ–‌বই, যার শিল্প–‌নির্দেশক সুদীপ্ত দত্ত কাজ করেছেন চমৎকার। ■
 

জনপ্রিয়

Back To Top