আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ ১১ মাসের শিশু জিক্রা মালিকের ভাঙা পায়ে প্লাস্টারের আগে তার প্রিয় পুতুল পরীকে একইভাবে প্লাস্টার করলেন চিকিৎসকরা। ঘটনাটি ঘটেছে দিল্লির লোকনায়েক হাসপাতালে। হাসপাতালের অস্থি বিশেষজ্ঞ অজয় গুপ্তা একথা জানিয়ে বললেন জিক্রার মা ফারহিন মালিকের পরামর্শেই পরীর পায়ে আগে প্লাস্টার করেন চিকিৎসকরা। গত ১৭ তারিখ খাট থেকে পড়ে গিয়ে পা ভেঙে যায় জিক্রার। তৎক্ষণাৎ হাসপাতালে নিয়ে গেলেও তার চিকিৎসা শুরু করা যায়নি। কারণ চিকিৎসক প্লাস্টার করার জন্য জিক্রার পা সোজা করে ধরতে বললেও ছটফটে শিশু ক্রমাগত নড়াচড়া করতে থাকে এবং ভয়ে কান্নাকাটি জুড়ে দেয়।

অবশেষে ফারহিন স্বামীকে বলেন বাড়ি থেকে জিক্রার প্রিয় পুতুল পরীকে নিয়ে আসতে। এরপর ফারহিনেরই পরামর্শে পরীর পায়ে আগে প্লাস্টার করে ট্র‌্যাকশন দিয়ে হাসপাতালে বিছানায় সেটি শুইয়ে দেন চিকিৎসকরা। তারপরই চিকিৎসায় আর বাধা দেয়নি জিক্রা। লোকনায়েক হাসপাতালের ১৬ নম্বর শয্যায় এখন পাশাপাশি দুটো ট্র‌্যাকশনে শুয়ে আছে জিক্রা আর পরী। চিকিৎসকরা জানালেন আগামী এক সপ্তাহের মধ্যেই সম্পূর্ণ সুস্থ হয়ে উঠে বাড়ি চলে যেতে পারবে জিক্রা। তবে আপাতত পুরো হাসপাতালে জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে পরী আর জিক্রা।
ছবি:‌ এএনআই 

জনপ্রিয়

Back To Top