আজকাল ওয়েবডেস্ক: কথায় বলে প্রকৃতির রোষের সমাধান প্রকৃতির মধ্যেই পাওয়া যায়। তেমনই এক অস্বাভাবিক ঘটনার মুখোমুখি গবেষকরা। বেলজিয়ামের এক খামারবাড়ির ১৩০টি লামার মধ্যের অন্যতম চার বছরের লামা উইন্টার। অন্য লামাদের মতোই উইন্টারও একটা বিশেষ ধরনের অ্যান্টিবডি নিজের শরীরে উৎপন্ন করে যা তার শরীরের স্পাইকি প্রোটিনকে পোষিত করতে এবং বেঁধে রাখতে সহায়ক হয়। কিন্তু উইন্টারের শরীরের ওই অ্যান্টিবডি, যার নাম গবেষকরা দিয়েছেন ন্যানোবডি, কোভিড–১৯ দমনে অত্যন্ত সক্রিয়। এমনটাই জানাচ্ছেন গবেষকরা। যদিও এই গবেষণা এখনও প্রাথমিক স্তরে রয়েছে। তবুও অস্টিনের টেক্সাস বিশ্ববিদ্যালয়, বেলজিয়ামের ন্যাশনাল ইন্সটিটিউট অফ হেল্থ অ্যান্ড ঘেন্ট বিশ্ববিদ্যালয়ের গবেষকরা আশাবাদী, এই ঘটনায়। উইন্টারের শরীরের অ্যান্টিবডি কীভাবে মানুষের শরীরে কাজে লাগানো যায় তা নিয়ে পরীক্ষানিরীক্ষা শুরু করেছেন তাঁরা।  
ছবি:‌ এএনআই   ‌‌

জনপ্রিয়

Back To Top