আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ আর হাতে গোনা চারদিন। তারপরই ভালোবাসার মাহেন্দ্রক্ষণ। অর্থাৎ ভ্যালেন্টাইন্‌স ডে। ইতিমধ্যেই শহরজুড়ে চলছে প্রেমের মরসুম। নেটিজেনদের কাছে এই সপ্তাহে প্রত্যেকদিনই বিশেষ। সাত তারিখ, রোজ ডে থেকে শুরু হয়েছে ভালোবাসার সপ্তাহ। তারপর পরপর চলছে কখনও টেডি ডে, কখনও চকোলেট ডে–র মতো প্রত্যেকটা দিন উদ্‌যাপন। এখন অপেক্ষার বিশেষ দিনের উদযাপন। ফুল কিন্তু প্রত্যেকদিনের সঙ্গী হতেই পারে। বিশেষ করে লাল গোলাপ। কারণ লাল রংটাই তো ভালোবাসার প্রতীক। তবে ভালোবাসার প্রকাশে বাধা হয়ে দাঁড়িয়েছে দাম। ফেব্রুয়ারির শুরু থেকেই চড়চড়িয়ে বাড়ছে গোলাপের দাম। ফলে প্রেমিক–প্রেমিকাদের কাছে লাল গোলাপ এখন মহার্ঘ। 
পরিস্থিতি এমন পর্যায়ে পৌঁছেছে যে, নদিয়ার ধানতলা থেকে বিদেশে যাচ্ছে লাল গোলাপ। বাগানেই যার দাম ৫০০ থেকে ৭০০ টাকা। নদিয়ার রানাঘাট দু’‌নম্বর ব্লকের ধানতলা, আড়ংঘাটা, দত্তফুলিয়া–সহ আশেপাশের এলাকায় বিঘার পর বিঘা জমিতে গোলাপ ফুলের চাষ হয়। এই সমস্ত অঞ্চলের বেশিরভাগ মানুষ গোলাপ ফুল ব্যবসার সঙ্গে যুক্ত। 
প্রশ্ন উঠছে, ভালোবাসার কাছে কিছু কি বাধা হয়ে দাঁড়াতে পারে?‌ হয়তো না। কিন্তু পরিস্থিতি প্রতিকূল হওয়ায় কাছের মানুষটিকে খুশি করতে পকেটের রেস্ত ভালোই খসাতে হবে এবার। লেক মার্কেট, সাদান মার্কেট, চারু মার্কেট, নিউ মার্কেট–সহ সারা শহরে এখন গোলাপের দাম আগুন। তাই অনেকে বলছেন, ‘‌ছুঁলে বুঝি লাগবে ছ্যাঁকা।’‌ আসলে একদিকে তো ভালবাসার সপ্তাহ চলছে, তার মধ্যে মাঘ–ফাল্গুন বাঙালিদের বিয়ের মাস। এই দু’‌তিন মাসেই লাভের মুখ দেখেন গোলাপ চাষীরা। আর সেই লাভের গুড় ঘরে তুলতে গিয়ে দাম চড়েছে বড্ড বেশি। আর প্রেমিকদের বলতে হবে, মেরেছো কি কলসির কানা তা বলে কি প্রেম দেব না। দাম বাড়ে বাড়ুক, প্রেম নিবেদন করব গোলাপ দিয়েই। ‌‌

জনপ্রিয়

Back To Top