আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ রান্নাকে কেউ পেশা হিসেবে গ্রহণ করেছেন। কেউ আবার রান্না করেন কেবল সখ মেটাতে। আবার এমনও মানুষ রয়েছেন যাঁরা রান্না করেন গরিব অভুক্তদেরও যথেষ্ট সাহায্য করতে। সেরকমই একজন হলেন তামিলনাড়ুর পেরুর ভাদিভেলামপালায়াম গ্রামের বাসিন্দা কে কমলাথল। আশি বছরের এই বৃদ্ধা গরিব মানুষকে খাবার তুলে দিতে মাত্র এক টাকায় ইডলি বিক্রি করেন। আজ নয়, গত ৩০–৩৫ বছর ধরেই ১ টাকা দরেই ইডলি বিক্রি করছেন তিনি। প্রতিদিন ভোর পাঁচটায় ঘুম থেকে উঠেই ইডলি প্রস্তুত করতে শুরু করেন। নরম নরম সুস্বাদু ইডলি তিনি চাটনি ও সাম্বার সহযোগে পরিবেশন করেন। আগে তাঁর ইডলির দাম ছিল পঞ্চাশ পয়সা। কিন্তু মুল্যবৃদ্ধির সঙ্গে পাল্লা দিয়ে তিনিও তাঁর ইডলির দাম বাড়িয়েছেন, কিন্তু ওই এক টাকা। প্রতিদিন প্রায় ১০০০টি ইডলি প্রস্তুত করেন কমলাথল। একটি সর্বভারতীয় সংবাদমাধ্যমকে তিনি জানিয়েছেন, লাভের অঙ্ক তাঁকে ভাবায় না, সাধারণ মানুষকে খাওয়াবেন এই আনন্দেই ইডলি বিক্রি করেন তিনি। তবে তাঁর এই গল্প ইতিমধ্যেই সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়েছে। বিখ্যাত ব্যবসায়ী আনন্দ মাহিন্দ্রা শেয়ার করার পরই এই বৃদ্ধার উদ্যোগকে নেটিজেনরাও প্রশংসা করেছেন। এমনকি কমলাথালের এই প্রচেষ্টাকে সম্মান জানাতে তাঁর ব্যবসায়ে লগ্নি করার ইচ্ছা প্রকাশ করেছেন আনন্দ মাহিন্দ্রা। কাঠের জ্বালানিতে ইডলি তৈরি করতে দেখে তাঁকে এলপিজি জ্বালানির স্টোভ প্রদান করারও ইচ্ছা প্রকাশ করেন তিনি। যদিও পরবর্তীতে ভারত পেট্রোলিয়ামের পক্ষ থেকে কমলাথলকে একটি এলপিজি সংযোগ বিনামূল্যে দেওয়া হয়। সেকথা টুইট করে জানান কেন্দ্রীয় মন্ত্রী ধর্মেন্দ্র প্রধান। 

জনপ্রিয়

Back To Top