আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ ফের ছন্দে সিআরসেভেন। বড় মঞ্চে তিনি জ্বলে ওঠেন। ঠিক যেমন মঙ্গলবার রাতে। চ্যাম্পিয়ন্স লিগে একাই জুভেন্টাসকে নিয়ে গেলেন কোয়ার্টার ফাইনালে। প্রথম লেগে অ্যাটলেটিকো মাদ্রিদের কাছে ০–২ ব্যবধানে হেরে গিয়েছিল জুভেন্টাস। মঙ্গলবার তুরিনে রোনাল্ডোর হ্যাটট্রিকের সুবাদে জুভেন্টাস দু’‌পর্ব মিলিয়ে জিতল ৩–২ ব্যবধানে। 
রোনাল্ডোর খেলা দেখতে তুরিনে হাজির ছিলেন বান্ধবী জিওর্জিনা রডরিগেজ। রোনাল্ডোর হ্যাটট্রিকের পর কান্না চেপে রাখতে পারেননি জিওর্জিনা। তিনি গ্যালারিতেই কেঁদে ফেলেন। তারপরই তিনি ইনস্টাগ্রামে রোনাল্ডোর ছোটবেলার একটি ছবি পোস্ট করেন। সঙ্গে লেখেন, ‘‌এই হ্যাটট্রিকটা নাটক করে আসেনি। রোনাল্ডোই এর যোগ্য। যে ক্লাবেই রোনাল্ডো খেলেছে। ওর নিষ্ঠা নিয়ে কোনও প্রশ্ন ওঠেনি। সতীর্থ, কোচ ছাড়াও অগণিত ভক্তদের ভরসা তুমি। বিশ্ব ফুটবলে তুমি রাজত্ব করে চলেছো। আমি ও পরিবারের সবাই তোমাকে ভীষণ ভালবাসি।’‌ 
এটা ঘটনা রিয়েল মাদ্রিদ ছেড়ে জুভেন্টাসে আসার পর রোনাল্ডোর সময়টা খুব ভাল যাচ্ছিল না। গোল পাচ্ছিলেন। কিন্তু চেনা রোনাল্ডোকে পাওয়া যাচ্ছিল না। অবশেষে তিনি ফিরলেন। একেবারে রাজার মত। হ্যাটট্রিক করে দলকে নিয়ে গেলেন শেষ আটে। ম্যাচের পর রোনাল্ডো বলেছেন, ‘‌বিশেষ রাত। শুধু নিজের নয়। গোটা দলের। চ্যাম্পিয়নদের মানসিকতাই এরকম হয়। জুভেন্টাস একারণেই আমাকে এনেছে। এরকম ম্যাজিক উপহার দেওয়ার জন্য।’‌ 

জনপ্রিয়

Back To Top