আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ ২০ বছর পর উত্তর ভারতের বায়ুদূষণ কমেছে এই বছর। সৌজন্য লকডাউন। এমনটাই বলছে নাসার উপগ্রহ চিত্র। উপগ্রহ চিত্রে দেখা যাচ্ছে, লকডাউনের পর বাতাসে এরোসোল এতোটাই নেমেছে যে অবস্থা ২০ বছর আগে ছিল। এরোসোলের অর্থ, বায়ুদূষণের অতি ক্ষুদ্র কণা যা আমাদের আবহাওয়া মন্ডলে চাপা পড়ে থাকে। এই কণা কঠিন পদার্থেরও হতে পারে বা তরল গ্যাসীয় পদার্থ দিয়েও তৈরি হতে পারে। মেঘ এবং কুয়াশাও একধরনের এরোসোল।
নাসার মার্শাল স্পেস ফ্লাইট সেন্টারের ইউনিভার্সিটিস স্পেস রিসার্চ অ্যাসোসিয়েশন বা ইউএসআরএ–র বিজ্ঞানী পবন গুপ্তা বললেন, ‘‌আমরা জানতাম লকডাউনের পর নানা জায়গায় বায়ুমন্ডলে বদল দেখতে পারব। কিন্তু গঙ্গা অববাহিকায় বছরের এই সময় এরোসোলের মাত্রা এতো কম আমি কোনওদিন দেখিনি।’ দক্ষিণ এবং মধ্য এশিয়ার কার্যকরী সহকারী সচিব অ্যালিস জি ওয়েলস্‌ বলছেন, ‘‌ভারত এবং পৃথিবী যখন আবার স্বাভাবিক জীবনে ফিরে আসবে তখন এটা ভুললে চলবে না মানুষের একজোট সহযোগিতাই প্রকৃতিকে পরিষ্কার রাখতে পারে।’‌
প্রথমে বায়ুদূষণের প্রকৃত পরিস্থিতি ঠিকমতো বুঝতে না পারলেও, মার্চের শেষের দিকে উত্তর ভারতে হওয়া ভারী বৃষ্টিই বায়ুমন্ডল থেকে এরোসোল ধুইয়ে দিয়ে দূষণ‌মুক্ত করতে আরও সহায়ক হয়েছে বলেই মনে করছেন নাসার বিজ্ঞানীরা।

 

  ‌‌‌‌

জনপ্রিয়

Back To Top