Viral: মালায়ালম ভাষায় গান করে কামাল করলেন মুর্শিদাবাদের পরিযায়ী শ্রমিক মাসাদুল  

আজকাল ওয়েবডেস্ক: মুর্শিদাবাদ জেলার ডোমকল থানা এলাকা বরাবরই রাজনৈতিক হিংসা, বোমা তৈরি থেকে শুরু করে বিভিন্ন বেআইনি কার্যকলাপের জন্য প্রায়ই খবরের শিরোনামে থাকে।

তবে এবার ডোমকালকে খবরের শিরোনামে নিয়ে এসেছে ডোমকলের এক অখ্যাত গ্রাম দাসেরচকের বাসিন্দা মাসাদুল শেখ। মাসাদুল এখন জেলার সোশ্যাল মিডিয়ার নতুন সেনসেশন। বাঙালি ছেলে মাসাদুলের মালায়ালাম ভাষাতে গাওয়া গানের ভিডিও এখন গোটা ভারতকে মাতাচ্ছে। তাঁর গানের ভিডিও ছড়িয়ে পড়েছে বিভিন্ন সোশ্যাল মিডিয়াতে।

ডোমকালের একটি স্কুল থেকে দ্বাদশ শ্রেণি পর্যন্ত পড়াশোনা করার পর মাসাদুল মুর্শিদাবাদের ইসলামপুর কলেজ ভর্তি হয়েছিলেন। কিন্তু অর্থের অভাবে সেখানেই তাঁর পড়াশোনার ইতি ঘটে। সংসার চালাতে পেটের দায়ে এরপর তিনি গ্রামে আরও দশজনের সঙ্গে পাড়ি দেন কেরালাতে পরিযায়ী শ্রমিকের কাজ করতে। প্রথাগত তালিম না থাকলেও গানের প্রতি বরাবরই ভালোবাসা ছিল মাসাদুলের। তাই কেরালাতে গিয়েও অবসর সময়ে গুনগুন করে গান গাওয়ার অভ্যাস ছাড়েননি মাসাদুল। তবে কেরালাতে গিয়ে তাঁর নতুন শখ জাগে মালায়ালম ভাষাতে গান গাওয়ার। আর যেমন ভাবা তেমন কাজ।

আরও পড়ুন: লাফিয়ে বাড়ছে করোনা! ১০ জানুয়ারি থেকে বন্ধ পুরীর মন্দির

মাসাদুল জানিয়েছেন, ‘কেরালাতে কাজ করার সময় সব থেকে আমাকে অসুবিধার মধ্যে ফেলে ভাষার সমস্যা। তাই বছর খানেক আগে মালায়ালম ভাষার বই কিনে ওই ভাষা শিখতে শুরু করি। আর মালায়ালম ভাষাতে সড়গড় হওয়ার জন্য স্থানীয় মালয়ালি বন্ধুদের সঙ্গে ওদের ভাষাতেই কথা বলি।’ 
সম্প্রতি মালয়ালম ভাষাতে নিজের গাওয়া কয়েকটি গান একটি জনপ্রিয় সমাজমাধ্যমে পোস্ট করেছিলেন। আর তাতেই কামাল হয়েছে। ইতিমধ্যে কেরলের দুটি জনপ্রিয় টিভি চ্যানেলে গান গাওয়া হয়ে গেছে ডোমকলের মাসাদুলের। সম্প্রতি তার ডাক পড়েছিল কেরালার বিখ্যাত বিনোদন চ্যানেল ফ্লাওয়ার্স টিভির স্টুডিওতে। সেখানে দক্ষিণের তিন বিখ্যাত অভিনেতা পাকরু, প্রজোদ এবং সাজুর সামনে মালয়ালি এবং বাংলাতে গান গেয়ে শোনান। ওই অনুষ্ঠানের উপস্থাপিকা দক্ষিণের অপর এক জনপ্রিয় নায়িকা রচনা, মাসাদুলের গান শুনে মুগ্ধ হয়ে বার বার তার পিঠ চাপড়ে দেন। সেই ভিডিও এখন ভাইরাল হয়ে গেছে। 

মাসাদুল জানিয়েছেন, ইতিমধ্যে তিনি ওই প্রতিযোগিতার দ্বিতীয় রাউন্ডে পৌঁছেছেন। এখন জোর কদমে চলেছে তাঁর গানের প্রস্তুতি। 
ডোমকালের বিধায়ক জাফিকুল ইসলাম বলেন, ‘প্রতিভাকে কেউ কখনও আটকে রাখতে পারে না। আমার বিধানসভা কেন্দ্রের মাসাদুল আরও একবার তা প্রমাণ করেছে। আমি ইতিমধ্যে ওঁর পরিবারের কাছে আমার শুভেচ্ছা বার্তা পাঠিয়েছি। মাসাদুল ডোমকল ফিরে এলে তাঁকে বড় করে সংবর্ধনা দেওয়া হবে এবং তাঁর একক সঙ্গীতানুষ্ঠানের আয়োজন করা হবে।’

আরও পড়ুন: একদিনে আক্রান্ত ১৮ হাজার পার! কলকাতাতেই ৭,৪৮৪, রাজ্যে ক্রমশ বাড়ছে পজিটিভিটি রেট

আকর্ষণীয় খবর