Kolkata Police: পুলিশ যখন শিক্ষক‌!‌ পথশিশুকে পড়াচ্ছেন কলকাতার ট্রাফিক সার্জেন্ট, নেটদুনিয়ায় প্রশংসার ঝড়

আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ পুলিশ যখন শিক্ষকের ভূমিকায়! এমনটাই দেখা গেল খাস কলকাতার রাস্তায়।

রীতিমতো ভাইরাল সেই ছবি। কলকাতা পুলিশের তরফে সেই ছবিও সোশ্যাল মিডিয়ায় প্রকাশ করা হয়েছে। এক পথশিশুকে রাস্তায় পড়াতে দেখা গেল সাউথ-ইস্ট ট্রাফিক গার্ডের সার্জেন্ট প্রকাশ ঘোষকে। জানা গিয়েছে, প্রায় প্রতিদিনই বালিগঞ্জ আইটিআই-এর কাছে ডিউটি করার সময় বা ডিউটির শেষে বছর আটের এক পথশিশুকে পড়ান তিনি।

তৃতীয় শ্রেণীর ছাত্র ওই শিশু ও তার মা রাস্তাতেই থাকেন। পাশেই রাস্তার ধারের একটি খাবারের দোকানে কাজ করেন ওই শিশুর মা। ছেলেকে কষ্ট করে পড়াশোনা করাচ্ছেন একটি সরকারি স্কুলে। সন্তানকে নিয়ে অনেক আশা তাঁর, কিন্তু ছেলের পড়াশোনার প্রতি অনীহা হয়ে উঠছিল চিন্তার কারণ। এদিকে ওই এলাকাতেই প্রকাশবাবুর ডিউটি পড়ত। সেই কারণে ওই মহিলার সঙ্গে পরিচয় হয় তাঁর। তখনই নিজের উদ্বেগের কথা জানান প্রকাশবাবুকে। এরপরেই পড়াশোনার দায়ভার নেন এই পুলিশ সার্জেন্ট। তিনি যে বিষয়টিকে এতটা গুরুত্ব দেবেন, তা অবশ্য আন্দাজ করতে পারেননি ওই মহিলা। হোমওয়ার্ক দেওয়া এবং তা দেখে দেওয়া, বানানের ভুল শুধরে দেওয়া, উচ্চারণ, সবটাই দেখিয়ে দেন প্রকাশবাবু। গায়ে উর্দি এবং পায়ে গেটার্স থাকায় বসতে অসুবিধে হয়, তাই একটি গাছের সরু ডালের সাহায্যেই দাঁড়িয়ে দাঁড়িয়েই পড়ান তিনি।

আরও পড়ুন:‌ ১১:‌০৫ মিনিটের পর স্কুলে ঢুকলেই অনুপস্থিত!‌ শিক্ষকদের একগুচ্ছ নির্দেশিকা রাজ্যের

এই ঘটনা ভাইরাল হয়েছে নেটদুনিয়ায়। সকলেই কুর্নিশ জানাচ্ছেন সার্জেন্ট প্রকাশ ঘোষকে। মনুষ্যত্ব যে এখনও রয়েছে তা প্রমাণ হল। দুই দায়িত্বই সমান দক্ষতার সঙ্গে পালন করছেন তিনি। স্যালুট প্রকাশবাবু। 

আকর্ষণীয় খবর