ঘটনার ‘‌সাক্ষী’‌!‌ থানায় গরুকেও সঙ্গে এনে প্রতিবাদ কৃষকদের

আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ দুই কৃষক নেতাকে গ্রেপ্তার করেছিল পুলিশ। প্রতিবাদে থানার সামনে এসে অবস্থান বিক্ষোভ শুরু করেন কৃষকরা। সঙ্গে ‘‌সাক্ষী’‌ গোমাতা। দেখে চোখ কপালে পুলিশের। এ হেন প্রতিবাদীকে আশা করেনি তারা। কৃষকরা নাছোড়। নাছোড় ‘‌সাক্ষী’‌ও। থানাতেই দাঁড়িয়ে রয়েছে সে।
হরিয়ানার ফতেহাবাদের তোহানার ঘটনা। রাজ্যে বিজেপি–জেজেপি–র সরকার। জেজেপি বিধায়ক দেবেন্দ্র সিং বাবলির বাড়ি প্রদক্ষিণ করে প্রতিবাদ করেন ২ কৃষক নেতা বিকাশ সিসার, রবি আজাদ। তাঁদের গ্রেপ্তার করে পুলিশ। তোহানা থানার বাইরে অবস্থান বিক্ষোভ শুরু করেন কৃষকরা। হরিয়ানার বিভিন্ন থানা ঘেরাওয়ের পরিকল্পনা করে সংযুক্ত কিসান মোর্চা। নেতৃত্ব দেন কৃষক নেতা রাকেশ টিকাইত। 
এদিকে তোহানার সামনে গোমাতাকে নিয়ে হাজির হন কৃষকরা। তাঁদের দাবি, ২ কৃষক নেতাকে গ্রেপ্তারের ৪১তম সাক্ষী হল গরুটি। তাই সেও প্রতিবাদস্থলে থাকবে। ওই গরুর খাবার, জল জোগানের দায়িত্ব থানার। তোহানা থানার সামনে খুঁটিতে বেঁধে দেওয়া হয় গরুটিকে। এক প্রতিবাদী কৃষক বলেন, ‘‌বর্তমান সরকার নিজেদের গো–দরদী, গরুর পুজো করা সরকার বলে দাবি করে। এই পশুকে পবিত্র ধরা হয়। তাই প্রতীক হিসেবে আমরা একে এনেছি। যাতে বতর্মান সরকারের সম্বিৎ ফেরে। 
রবিবার রাতেই ওই ২ কৃষকদের ছেড়ে দেওয়া হয়। তাই হরিয়ানার থানা ঘেরাওয়ের পরিকল্পনা বাতিল করে কৃষক সংগঠন। তবে তোহানাতে প্রতিবাদ চলবে বলে জানিয়েছেন কৃষকরা।