আজকাল ওয়েবডেস্ক: কর্মচারী–মালিক সম্পর্কের পুরনো প্রবাদ, কর্মচারীরা খুশি থাকলে আখেরে লাভ মালিকেরই। অথচ সহজ এই সত্যটা অনেক মালিকপক্ষই বুঝতে পারে না। যার ফল ধর্মঘট, শ্রমিক বিক্ষোভ, লকআউটের মতো ঘটনা। কিন্তু পুরনো সেই প্রবাদবাক্য স্মরণ করে করোনা–আতঙ্কের জেরে লকডাউনে অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ পদক্ষেপ নিলেন হায়দরাবাদের এক ঠিকাদার।
সৈয়দ মুন্নাওয়ার নামে তেলঙ্গানার হায়দরাবাদের নির্মাণশিল্পের সঙ্গে যুক্ত ওই ঠিকাদারের সঙ্গে ভিন রাজ্যের বেশ কয়েকজন পরিযায়ী শ্রমিক কাজ করেন। লকডাউনে গণ পরিবহন থমকে যাওয়ায় তাঁরা নিজেদের বাড়ি ফিরতে পারেননি। তাঁদের জন্য একটি নির্মীয়মাণ আবাসনের ভিতরই নিজের উদ্যোগে একটা অস্থায়ী ছাউনি গড়েছেন।

 সেখানে তাঁদের জন্য নিজের খরচেই খাবার, নিত্য প্রয়োজনীয় সামগ্রী, পোশাক, ওষুধপথ্যের ব্যবস্থাও করেছেন তিনি। মুন্নাওয়ার বললেন, ‘‌ওঁরা যদি নিজেরা সুস্থ থাকে তাহলেই নিজের পরিবারের জন্য টাকা রোজগার করতে পারবে। অসুস্থ হয়ে পড়লে তো উল্টে আরও খরচ হবে চিকিৎসার পিছনে।’‌ আর পরিচিত শ্রমিকরা অসুস্থ হয়ে পড়লে তাঁকে ফের নতুন করে শ্রমিক খুঁজতে হবে তা সময় এবং খরচ সাপেক্ষও হবে। তাই এতে তাঁর নিজেরও সুবিধা বলেই জানাচ্ছেন মু্ন্নাওয়ার। আর নিজের ঠিকাদারের কাছে এভাবে সহযোগিতা পেয়ে খুশি শ্রমিকরাও।
ছবি:‌ এএনআই ‌‌‌‌‌‌

জনপ্রিয়

Back To Top