আজকাল ওয়েবডেস্ক: রানিকুঠির জি ডি বিড়লা স্কুলের ৪ বছরের শিশুকে ধর্ষণের ঘটনায় সোশ্যাল মিডিয়া একদিকে যেমন প্রতিবাদে সরব হয়েছে, তেমনি সোশ্যাল মিডিয়াতে বেশ কিছু লোকে স্কুলের পাশে এসেও দাঁড়িয়েছে। ‘‌পাশে আছি জি ডি বিড়লা’ নামের ফেসবুকের একটি গ্রুপের মূল উদ্দেশ্য কী তা এখনও বোঝা না গেলেও, এটা বোঝা যাচ্ছে স্কুলের মধ্যে ঘটা এই ঘৃণ্যতম অপরাধকে নেহাতই হাল্কাভাবে নেওয়া হয়েছে সেখানে। স্কুলের কোনও দোষই নেই, দাবি তাঁদের। 
কোনও ঘটনা ঘটলে এখন সোশ্যাল মিডিয়াই প্রাথমিক ভাবে তার প্রতিবাদে শুরু করে। তাই জি ডি বিড়লার এই ঘটনা নিয়েও যে সোশ্যাল মিডিয়ায় হইচই হবে সেটা খুব স্বাভাবিকই ছিল। কিন্তু ‘‌পাশে আছি জি ডি বিড়লা’ নামে এই গ্রুপ সরাসরি অভিভাবকদের স্কুল প্রশাসন বিরোধী অবস্থান নিয়ে ঠাট্টা করছে। এই গ্রুপ সদস্যদের বেশ কিছু প্রতিক্রিয়াতে লক্ষ্য করা গিয়েছে, ৪ বছরের শিশুটির ওপর যা হয়েছে তা ধর্ষণ না শ্লীলতাহানি না যৌন নির্যাতন তা নিয়ে সন্দেহে রয়েছেন তাঁরা। আবার একটি–দুটি মন্তব্যে উঠে তো এমনও দাবি করা হয়েছে যে, ৪ বছরের শিশুটি নাকি নাটক করছে। সবচেয়ে বিস্ময়ের বিষয় এই গ্রুপে স্কুল খোলা থাকবে কিনা বা কবে খুলতে পারে তা নিয়েও পোস্ট রয়েছে। এঁদের সকলেরই দাবি, স্কুলকে বদনাম করার মানে হয় না। কিন্তু এঁরা একবারও ভেবে দেখছেন না, যে স্কুলের গাফিলতিতেই সেদিন ওই শিশুর উপর অত্যাচার হয়। এই ঘটনা জানার পরেও যেভাবে স্কুল কর্তৃপক্ষ উদাসীনতা দেখিয়েছিল, তা নিয়েও এঁদের কোনও মন্তব্য চোখে পড়েনি। 

 


জনপ্রিয়

Back To Top