আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ জওহরলাল নেহরু বিশ্ববিদ্যালয়ে তাণ্ডবের ঘটনায় এবার কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর পদত্যাগের দাবি উঠল। জেএনইউ–এর বাম ছাত্র সংসদের অভিযোগ, দিল্লি বিশ্ববিদ্যালয়ের এবিভিপি’‌র গুন্ডারা ব্যাপক সংখ্যায় লোহার রড নিয়ে হামলা চালায় বিশ্ববিদ্যালয়ে। রবিবার সন্ধ্যার এই ঘটনায় তোলপাড় পড়ে গিয়েছে দেশজুড়ে। ঘটনার পর রাতেই কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহের পদত্যাগ দাবি করেছে আম আদমি পার্টি। দিল্লি পুলিশের দায়িত্ব কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রকের হাতে। সেই পুলিশের বিরুদ্ধে জেএনইউ কাণ্ডে চূড়ান্ত অপদার্থতা, নীরব থাকার অভিযোগ উঠেছে।
এই পরিস্থিতিতে চাপের মুখে পড়ে জেএনইউ কাণ্ডে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ রিপোর্ট তলব করেছেন। আইজি পদমর্যাদার পুলিশ অফিসারকে দিয়ে তদন্তের নির্দেশও দিয়েছেন। রীতিমতো লোহার রড দিয়ে মারা হয় পড়ুয়াদের। বাদ যাননি ছাত্র সংসদের সভাপতি, বাংলার মেয়ে ঐশী ঘোষও। মাথা ফেটে যায় তাঁর ও অনেক পড়ুয়ার। রক্তাক্ত অবস্থায় তাঁদের নিয়ে যাওয়া হয় হাসপাতালে। ঐশীকে ভর্তি করা হয়েছে এইমসের ট্রমা কেয়ার ইউনিটে। শুধু পড়ুয়াদের ওপর নয়, হামলা চালানো হয়েছে অধ্যাপিকাদের ওপর। হামলায় সুচরিতা সেন নামে এক অধ্যাপিকা গুরুতর আহত হয়েছেন বলে খবর। গোটা ঘটনায় নিন্দার ঝড় উঠেছে দেশজুড়ে। 
দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়াল লেখেন, ‘‌আমি জেএনইউ’‌র ঘটনায় মর্মাহত। নৃশংসভাবে ছাত্রদের ওপর হামলা চালানো হয়েছে। পুলিশের উচিত ছিল পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনা। বিশ্ববিদ্যালয়ের ক্যাম্পাসে ঢুকে পড়ুয়াদের ওপর হামলা চালানো হলে কোনও দেশ এগোতে পারে না কখনই।’‌

জনপ্রিয়

Back To Top